মেয়েদের ‘গোপন আবদারে’ বিব্রত সার্জেনরা!

954

ভার্চুয়াল দুনিয়ার অমোঘ টানে জীবন বিপন্ন! হ্যাঁ, বিশ্বের একটা বড় অংশের নারী মজেছেন বার্বি ডলের মতো ভ্যাজাইনা বা যোনিতে। এই ‘বার্বি ভ্যাজাইনা’ পেতে যোনিতে ছুরি-কাঁচি চালিয়ে জীবন ঝুঁকি নিচ্ছেন বহু নারী।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই প্রবণতা বাড়ার অন্যতম কারণ ইন্টারনেট পর্ন।

পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৫ সালেই বিশ্বের প্রায় ১ লক্ষ নারী ‘বার্বি ভ্যাজাইনা’ পেতে labiaplasty নামক অস্ত্রোপচার করেছেন। এর মধ্যে ৫০ হাজার নারীই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে বয়ঃসন্ধির যোনি পেতে চেয়েছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অস্ত্রোপচার অত্যন্ত বিপজ্জনক। অনেক নারীর রক্তপাত বন্ধ হয়নি, সংক্রমণ হয়ে গেছে যোনিতে।

কেন এই অবস্থা?
বিশেষজ্ঞরা এই প্রবণতার জন্য ইন্টারনেট পর্নের সহজলভ্যতাকেই দুষছেন। তারা বলছেন, ইন্টারনেট পর্নে পর্নস্টারদের ভ্যাজাইনার মতো ভ্যাজাইনা পাওয়ার ইচ্ছে হচ্ছে নারীদের। তাই জীবন বাজি রাখতেও পিছপা হচ্ছেন না তারা।

বাড়ির পাশেই সুবিধা

ভ্যাজাইনায় ছুরি-কাঁচি চালিয়ে সুন্দর করে তোলার প্রবণতা সম্প্রতি পাশের দেশ ভারতের কলকাতাতেও দেখা যাচ্ছে। নতুন ট্রেন্ড ‘ভ্যাজাইনোপ্লাস্টি’। ঠোঁট, নাক, ত্বকের মতোই এবার নারী যৌনাঙ্গও হতে পারে পছন্দমতো। মনের মতো। বা চাহিদামতো।

কিন্তু মনোবিদরা বলছেন অন্য কথা। তাদের মতে, “আমার শরীরের অভ্যন্তরীণ রূপ যদি আমার সঙ্গী বদল করতে চান, তাহলে বুঝতে হবে কোথাও একটা সমস্যা আছে। কারণ সম্পর্ক মানে শুধুই শরীর নয়। আর আমি নিজে যদি অন্যের কাছে আরও বেশি গ্রহণযোগ্য হওয়ার জন্য এরকম একটা সার্জারি করি, তাহলে বুঝতে হবে আমার আত্মবিশ্বাসের অভাব রয়েছে। আমরা অন্যের চোখে নিজেকে সুন্দর করতে চাই বলেই এই সার্জারি এত জনপ্রিয় হচ্ছে। “

0 Shares
Share.