তিনদিন আটকে রেখে তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ

1607

রাজধানীর পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়ার একটি বাসায় তিনদিন ধরে আটকে রেখে এক গার্মেন্টস কর্মী তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

২০ বছরের ওই তরুণীকে সোমবার বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পুলিশ আনার পর ঘটনাটি সম্পর্কে জানা যায়।

গেণ্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মিজানুর রহমান জানান, ‘যাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করা হচ্ছে, তারা তার আত্মীয়। সে ঘটনাস্থল নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কথা বলছে। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

ওই পোশাককর্মীর স্বামীকে উদ্ধৃত করে ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাচ্চু মিয়া জানান, ‘গত ২৬ জানুয়ারি ওই তরুণী ডেমরার বাসা থেকে গেণ্ডারিয়ার মুন্সিরটেকে খালার বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলেন। ওই দিন বিকালে তার চাচাত ভাই ফোন করে তাকে কাপ্তানবাজারে ডেকে নেয়। সেখান থেকে পাশে এক ভবনের ৫ তলায় নিয়ে আটকে রাখে এবং সেখানে থাকা দুজন তাকে ধর্ষণ করে।’

সোমবার ওই তরুণী কৌশলে বেরিয়ে গেণ্ডারিয়া থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন।

ওসি মিজান বলেন, ‘সে কখনও পল্টন, কখনও গুলিস্তান, কখনও কাপ্তানবাজার এলাকায় ধর্ষণ হয়েছে বলে জানাচ্ছে। তারপরেও অভিযোগটি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।’ —নতুনসময়

Share.