হোমওয়ার্ক না করায় ছাত্রীদের অর্ধনগ্ন করে প্যারেড ও ভিডিও!

0
প্রতীকী ছবি

 

কাঠফাটা রোদ। তার ভেতরেই স্কুল মাঠে একদল মেয়ে প্যারেড করছে। গায়ে স্কুল ইউনিফর্ম তো দূরের কথা, প্রায় কোনো পোশাক নেই বললেই চলে! প্যারেডের সেই দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও করছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা!

সেই সঙ্গে প্রধান শিক্ষিকা হুমকি দিলেন, এবার থেকে হোমওয়ার্ক না করে স্কুলে এলে মোবাইলে তোলা ভিডিও ফাঁস করে দেবেন।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্র জেলার একটি বালিকা বিদ্যালয়ের এই ঘটনা ঘটে।

হোমওয়ার্ক না করে স্কুলে আসায় অষ্টম শ্রেণির একদল ছাত্রীকে এভাবেই ‘শাস্তি’ দিয়েছিলেন মীনা সিন্ধ নামের ওই প্রধান শিক্ষিকা। কিন্তু, ঘটনার কথা প্রকাশ্যে চলে আসায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয় প্রশাসন। উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্র জেলার একটি বালিকা বিদ্যালয়ের ওই প্রধান শিক্ষিকাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

জেলাশাসকের কাছে অভিযোগে ওই ছাত্রীরা জানিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতো গত শনিবারও স্কুলে গিয়েছিল তারা। কিন্তু হোমওয়ার্ক না করে নিয়ে যাওয়ায় প্রধান শিক্ষিকা তাদের ক্লাসের বাইরে বেরিয়ে যেতে বলেন। এরপর স্কুল মাঠে দাঁড় করিয়ে তাদের পোশাক খুলে ফেলতে নির্দেশ দেন। অনিচ্ছা সত্ত্বেও তারা সেই নির্দেশ মানে। সেখানেই থামেননি ওই মহিলা। অর্ধনগ্ন ছাত্রীদের এরপর তিনি প্যারেড করতে নির্দেশ দেন। গোটা ঘটনাটা মোবাইলে তোলার সময় তিনি হুমকি দেন, এরপর থেকে হোমওয়ার্ক না করে স্কুলে এলে ওই ভিডিও বাজারে ছেড়ে দেওয়া হবে। প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে তাদের প্যারেড করানো হয়।

অভিযোগ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই ব্যবস্থা নেন জেলাশাসক। বরখাস্তের পাশাপাশি ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

Share.