প্রেমিকের সঙ্গে কথা বলতে বাধা দেয়ায় দাদিকে অ্যাসিড নিক্ষেপ

0

প্রেমিকের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে বাধা দেয়ায় দাদি সম্পর্কীয় এক নারীর ওপর অ্যাসিড ছুঁড়েছে এক কিশোরী। গত বুধবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ার শহরে ঘটেছে এমন ঘটনা।

এ ঘটনায় ১৪ বছরের ওই কিশোরীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অ্যাসিডে আক্রান্ত আরতি নন্দী (৭০) এখনো হাসপাতালে ভর্তি।

আলিপুরদুয়ার পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যনগরের উদয়বিতান ক্লাব এলাকার বাসিন্দা তিনি। প্রেমিককে ঘন ঘন ফোন করার ব্যাপারে ওই কিশোরীকে নিরুৎসাহিত করতেন। ঘটনার দিনও ওই কিশোরী ফোনে কথা বলার সময় আপত্তি করেন।

তাতে রেগে গিয়ে ঘর থেকে এক কাপ নাইট্রিক অ্যাসিড এনে বৃদ্ধার মুখে ছুড়ে মারে কিশোরীটি। তবে কিশোরীই যে আসল অপরাধী, তা প্রথমে বুঝতে পারেনি কেউ।

স্থানীয় আইনজীবী মোহিত বিশ্বাসের বাড়ি ওই কিশোরীর বাড়ির পাশেই। তিনি বলেন, ঘটনার পর আরতির চিৎকার শুনে আমি ছুটে যাই। গিয়ে দেখি মেয়েটা একা দাঁড়িয়ে রয়েছে। আমাকে দেখেই বলল, জ্যেঠু দুটো ছেলে বাইক নিয়ে এসে দিদাকে কী ছুঁড়ে দিয়ে পালিয়ে গেল। দিদাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে।

জেলার পুলিশ সুপার আভারু রবীন্দ্রনাথ বলেন, আমি নিজে ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েটির সঙ্গে কথা বলি। ও দুটো ছেলের কথা বলছিল। আমরা তদন্ত সেভাবেই শুরু করি। বৃদ্ধার জ্ঞান না ফিরলে জানতেই পারতাম না ছাত্রীটিই এ কাণ্ড ঘটিয়েছে।

কিশোরীকে জলপাইগুড়ি জুভেনাইল জাস্টিস কোর্টে তুললে বিচারক তাকে পূণর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Share.