কাজের ফাঁকে মিলনের প্রস্তাব কাউন্সিলরের

0

বিশ্বের যে কোনো দেশের বেসরকারি সংস্থার কর্মীদের কাজের চাপে নাভিশ্বাস ওঠার উপক্রম। অনেককে আবার কাজ শেষ করতে বাড়িতেও নিয়ে যেতে হয় অফিসের কাজ। আর এর জেরে ধাক্কা খায় মানুষের তার পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক।

এবার স্ত্রী বা পার্টনারের সঙ্গে সম্পর্কের উষ্ণতা বজায় রাখতে এক অভিনব উপায় বাতলে দিলেন সুইডেনের এক স্থানীয় কাউন্সিলর। তার প্রস্তাব, প্রত্যেক সুইডেনবাসীর উচিৎ অফিস থেকে একঘণ্টার পেইড বিরতি নিয়ে বাড়ি গিয়ে নিজের পার্টনারের সঙ্গে শারীরিক মিলন করা। এর ফলে ব্যক্তিগত সম্পর্কের উন্নতি হবে, সম্পর্কের উষ্ণতাও বজায় থাকবে।

স্থানীয় এই কাউন্সিলর এই সংক্রান্ত এক নথি পেশ করে বলেছেন শারীরিক এবং মানসিক সুস্থতার জন্যে শারীরিক মিলন একান্ত প্রয়োজনীয়। প্রসঙ্গত, কাজের দক্ষতাও বাড়ে যদি সঠিক অনুপাতে শারীরিক মিলন করা যায়। তিনি তার বক্তব্যে আরো বলেন, বর্তমান যুগে দম্পতিরা একে অপরকে পর্যাপ্ত সময় দিচ্ছেন না। কিন্তু জীবনে সবকিছুই করা সম্পর্ককে বজায় রাখার জন্যে।

তবে সংস্থা থেকে একঘণ্টার বিরতি নিয়ে যে কর্মীরা বাড়ি গিয়ে পার্টনারের সঙ্গে সময় কাটাবেন সেটা নিশ্চিত করা যাবে কী উপায়? এ প্রসঙ্গে, কাউন্সিলরের মত, এক্ষেত্রে কর্মীদের কথার ওপরই ভরসা রাখতে হবে। অনেকক্ষেত্রে কর্মীরা শারীরিক মিলন করতে না গিয়ে হাঁটতেও চলে যেতে পারেন।

Share.